ঘোষনা
Teem24.com আপনার সব সময়ের সঙ্গী...

বাপ-পোলার ধর্ষণের ফলে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী

বরগুনা সংবাদদাতা
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৫৮ বার পঠিত

বরগুনায় বাপ-পোলার ধর্ষণের ফলে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে এক কিশোরী। বরগুনার সাবেক এক আওয়ামী লীগ নেতা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে এ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত বাবা-ছেলেকে আটক করেছে থানা পুলিশ।

অভিযুক্ত নুরুল ইসলাম বরগুনা পৌরসভার ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। তার ছেলে আরিফ হোসেনের (২৩) বিরুদ্ধেও একই অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী ওই কিশোরী।

ভুক্তভোগী কিশোরীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা নেই, তার মা শহরে ঘুরে ঘুরে সবজি বিক্রি করেন। এজন্য সারাক্ষণ একাই বাসায় থাকতো ওই কিশোরী। প্রতিবেশী নুরুল ইসলামের ছোট মেয়ের সঙ্গে পরিচয় হলে তাদের বাসায় আসা যাওয়া করতো ভুক্তভোগী কিশোরী। তাদের বাসার টুকটাক কাজও করতো।

একদিন বাসায় গেলে ভয়ভীতি দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ করেন নুরুল ইসলাম। এর কয়েকদিন পর ছেলে আরিফ হোসেন নুরুল ইসলামের ঘটনাটা নিয়ে কিশোরীকে ব্ল্যাকমেইল করে কয়েকবার ধর্ষণ করেন। এরপর কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা হলে বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী পরিবার জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ করলে তিনি বরগুনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে ব্যবস্থা নিতে বলেন। পরে বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিষয়টি আমলে নিয়ে একটি টিম পাঠিয়ে রোববার (২ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ১২টায় প্রথমে নুর ইসলামকে আটক করে থানায় আনেন। এর কিছুক্ষন পর তার ছেলে আরিফকেও আটক করা হয়।

ভুক্তভোগী কিশোরীর মা জানান, কাজের প্রয়োজনে সারাক্ষণ বাইরে থাকতে হয়। এ কারণে আমার মেয়ে প্রায় সময়ই নুর ইসলামের ছোট মেয়ের সঙ্গে তাদের বাসায় থাকত। আমার মেয়েকে দিয়ে তারা কাজও করাতো। কিন্তু তারা যে আমার মেয়ের এতো বড় সর্বনাশ করবে কখনোই ভাবিনি, বুঝতে পারলে আমি মেয়েকে ওদের সঙ্গে মিশতে দিতাম না। আমার মেয়ের এ অবস্থা যারা করেছে প্রশাসনের কাছে আমি তাদের কঠিন বিচার চাই।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Cyber Planet BD