ঘোষনা
Teem24.com আপনার সব সময়ের সঙ্গী...

সাবধান ফেসবুক গ্রাহক, নীতিমালা তৈরী

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ৪ জানুয়ারী, ২০২২
  • ২১৫ বার পঠিত

ফেসবুকের অনেক গ্রাহকের কাছে মাঝে মধ্যে কয়েকটি মেসেজ যাচ্ছে। যেমন নির্দিষ্ট সময়ের জন্য কমেন্ট, ইমোজি লাইক বন্ধ থাকছে। বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগের মেসেঞ্জার সার্ভিস সীমিত। ফেসবুক পেজে বন্ধুদের মনের খবর ও ছবি আসছে না। ফেসবুক নীতিমালা বিরোধী কোন কিছু পোস্ট করলে ওই ফেসবুক ব্লক করে দেয়া হচ্ছে। একবার ব্লক হলে পুনরায় চালু রাখতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হচ্ছে। কেন এমনটি হচ্ছে এ নিয়ে নানা আলোচনা শুরু হয়েছে। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ নোটিস পাঠিয়ে বন্ধ করছে। কেউ গ্রাহ্য করছে। কেউ করছে না। যখন বন্ধ হয়ে যাচ্ছে তখন হাপিত্যেশ। কিছু করার নেই। অনেকে আবার নতুন এ্যাকাউন্ট করে বন্ধুদের কাছে ফ্রেন্ডস রিকোয়েস্ট পাঠাচ্ছে। তারাও বুঝতে পারছে না। যখন কোন মাধ্যমে জানতে পারছে কি কারণে নতুন করে ফ্রেন্ডস রিকোয়েস্ট তখন সেও তাকে বন্ধু রাখতে চিন্তা করছে।

ফেসবুক আপনার হাঁড়ির খবর নিয়েই ছাড়ছে। নিয়মের বাইরে অন্যরকম কিছু হলে ফেসবুক ব্যবস্থা নিচ্ছে। বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক নিত্য নতুন ইভেন্ট চালু করছে। শীঘ্রই ফেবু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সঙ্গে সংবাদ মাধ্যমেও পরিণত হতে যাচ্ছে। এর আগে তারা (ফেসবুক) বিশে^র ফেসবুক ব্যবহারকারীদের তাবত খবর নিচ্ছে আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্সের (এআই) মাধ্যমে। বর্তমানে ফেসবুকের মালিকানায় আছে ফেসবুক মেসেঞ্জার হোয়াটসএ্যাপ ও ইনস্টাগ্রাম। প্রতিষ্ঠাতা জাকারবার্গ জনপ্রিয়তাকে পরিচ্ছন্ন রাখতে লাগাম টানতে শুরু করেছেন। ইতোমধ্যে তারা ফেসবুকের (ফেবু) ক্লায়েন্টদের প্রকৃত পরিচয় খুঁজে বের করতে নিজস্ব প্রোগ্রাম আর্টিফিসিয়াল ইনটেলিজেন্স ল্যাব (এআইএল) বসিয়েছে। নানাভাবে স্ক্যানিং করে ব্যবহারকারীদের যে অসঙ্গতিগুলো ধরা পড়ছে তার পরিমাপ স্ক্যান করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। প্রথমে সাবধান করে দেয়া। তারপর নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সাসপেন্ড। তারপর দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফা হুঁশিয়ারি। তারপরও সাবধান না হলে একেবারে ব্লক করা হচ্ছে।

এই ইনটেলিজেন্স ল্যাব সাইট ফ্লিকার থেকে গ্রাহকের ছবি ও হোয়াট এ্যাবাউট নিয়ে অত্যাধুনিক বৃদ্ধিমত্তানির্ভর রসায়নাগারে বিশ্লেষণ করে ইতোমধ্যে প্রায় দশ কোটি গ্রাহককে ভুল বিষয়, অসঙ্গতি এবং অতিরঞ্জন তথ্য প্রবাহের বাহক হিসাবে চিহ্নিত করেছে। এই গ্রাহকদের অন্তত ৭০ শতাংশই দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার। বাংলাদেশও এই তালিকার মধ্যে পড়েছে। তারা ফেসবুক থেকে সাবধান হওয়ার মেসেজ পাচ্ছেন। কেউ কোন গ্রাহকের বিরুদ্ধে আবেদন করলে তাও যাচাই করে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ফেসকুকে অসঙ্গতির কোন কিছু ভাইরাল হলে সেই দেশের সরকার ফেসবুককে তা জানালে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ দ্রুত ব্যবস্থা নিচ্ছে। এই কর্মসূচী অব্যাহত রয়েছে। ফেসবুকে একবার ব্লক হলে ফিরে আসতে প্রধান কার্যালয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র্রের ক্যালিফোর্নিয়ার অনলাইনে আবেদন করতে হবে। তারপর ভিডিও কলের মাধ্যমে ইন্টারভিউ দেয়ার পর উত্তর সন্তোষ হলেই কেবল ফিরতে পারবেন।

ব্যক্তির শরীরের গড়ন পোশাক মুখাবয়ব স্টাইল বিভিন্ন সময়ে পোস্ট করা ছবি ডাটা ও হোয়াটস অন ইউর মাইন্ড (স্টেটাস) লেখা দেখে ও পড়ে ল্যাব সিদ্ধান্ত দেবে। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বাংলাসহ কয়েকটি ভাষায় লিখা পোস্ট ইংরেজী অনুবাদ করে নিতে পারে। নানাভাবে এই ল্যাবের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ব্যবহারকারী নিজে আগ্রহী হয়ে ইন্টারেস্টিং কোন এ্যাপসে গিয়ে ক্লিক করলে নিজের অবচেতনেই ধরা দেবেন তিনি কে! এ ছাড়াও আরও অনেক অপশন ও এ্যাপস আসছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের নীতিমালার সঙ্গে ম্যাচ করে না এমন কোন কিছু পোস্ট করতে পারবেন না।

আরেক সূত্রের খবর- কে কিভাবে ফেবু ব্যবহার করছেন তা দেখতে শীঘ্রই একটি সফট ওয়্যার ইনস্টলের কাজ চলছে। ফেসবুক যাতে কোনভাবেই কোন দেশের, কোন ব্যক্তি প্রতিষ্ঠনের বিরাগভাজন না হয়ে দাঁড়ায় সে জন্য নানা ধরনের উদ্যোগ নিয়েছেন জাকারবার্গ। উপমহাদেশে ফেসবুককে আরও আধুনিক ও গতিশীল করতে ফেসবুকের ভারতের হায়দ্রবাদ কেন্দ্রকে ইতোমধ্যে আধুনিকায়ন করা হয়েছে। বাংলাদেশে বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছয় কোটিরও বেশিতে ঠেকেছে। ফেসবুক ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়ছে। বিশ্বে বর্তমানে ফেসবুক ব্যবহারকারী দুইশ’ কোটি ছাড়িয়ে গিয়েছে। বর্তমানে এ্যান্ডরয়েড, আই-ফোনসহ উন্নতমানের স্মার্টফোনের সহজলভ্যতায় ইন্টারনেট সেবা বিশেষ করে ফেসবুক মেসেঞ্জার হাতের মুঠোয় চলে এসেছে। স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By Cyber Planet BD